শয়তানের পরাজয়


আসাদ খান

সেই বনী ইসরাঈলের কথা। এক বুযুর্গকে পথভ্রষ্ট করার জন্য শয়তান বারবার চেষ্টা করে যাচ্ছিল। কিন্তু সে কিছুতেই সফল হতে পারছিল না।

একদিন সেই বুযুর্গলোক কোথাও যাচ্ছিলেন। অভিশপ্ত শয়তানও তার সাথে সাথে চলতে লাগলো। রাস্তায় বুযুর্গকে রাগান্বিত করার কত চেষ্টাই না শয়তান করল। কখনও ভয় দেখাচ্ছে তো কখনও শাসাচ্ছে। কিন্তু কিছুতেই সে সফল হতে পারছেনা । বুযুর্গলোকটি এবার কোন এক স্থানে বসে পড়লেন। শয়তান এসময়  পাহাড়ের উপর থেকে একটি পাথর নিচের দিকে গড়িয়ে দিল। পাথরটি নিচের দিকে পড়ছে দেখে বুযুর্গলোকটি আল্লাহর যিকির শুরু করলেন। ফলে পাথরটি অন্য দিকে গড়িয়ে পড়ল। এরপর শয়তান তাকে বাঘ, সিংহ ইত্যাদি আকৃতিতে ভয় দেখাতে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হল।

একবার সেই বুযুর্গলোকটি নামায পড়ছিলেন। এমন সময় শয়তান সাপের আকৃতি ধারন করে বুযুর্গের মাথা থেকে পা পর্যন্ত পেঁচিয়ে ধরল এবং তার সিজদার স্থানে মুখ হা করে বসে পড়লো। কিন্তু না, এতেও বুযুর্গলোকটির মধ্যে কোন প্রতিক্রিয়া দেখা দিল না। তখন শয়তান নিরাশ হয়ে বলল, আমি আপনাকে পথভ্রষ্ট করতে কতই না চেষ্টা করলাম কিন্তু কিছুতেই সফল হলাম না। ঠিক আছে, এবার আপনার সাথে বন্ধুত্ব করতে চাই। আমি কথাদিচ্ছি, আপনাকে আর কোনদিনই পথভ্রষ্ট করার চেষ্টা করব না। আশাকরি আপনি আমার সাথে বন্ধুত্ব করবেন। একথা শুনে বুযুর্গলোকটি বেশ জোরে ধমকের সুরে বললেন, “আরে বদমায়েশ, এটাও তো তোর ষড়যন্ত্র। তোর সাথে আমার বন্ধুত্ব করার কোন দরকার নাই।”

শয়তান এবার সবদিক থেকে নিরাশ হয়ে নিজের আসল রুপে বুযুর্গলোকটির সামনে এসে দাড়ালো এবং বলল, মানুষকে আমি কিভাবে পথভ্রষ্ট করি তা আপনাকে বলতে চাই। বুযুর্গলোকটি বললেন, “ঠিক আছে বল। শয়তান তখন বলল, “আমি মানুষকে তিনট জিনিসের মাধ্যমে পথভ্রষ্ট করি। তাহলো: ১.কৃপণতা, ২.হিংসা ও ৩. নেশা (মাদকদ্রব্য)।

কোন মানুষের মাঝে যখন কৃপণার স্বভাব জন্মে, তখন সে সম্পদ সঞ্চয় করতে চায়, খরচ করতে চায়না, অন্যের হক নষ্ট করতে ভয় পায়না।

হিংসুক ব্যক্তি আমাদের(শয়তানের) হাতের খেলনা মাত্র। আমরা তাদের ইবাদত বন্দেগীর কোন মূল্য দেই না। মাত্র একটি ইশারায় তাদের সমস্ত সাধনা নষ্ট করে দিতে পারি।

মানুষ যখন নেশায় বিভোর হয়ে পড়ে,তখন আমরা শয়তানেরা তাকে ছাগলের মতো কানে ধরে সহজেই কুকর্মের দিকে নিয়ে যেতে পারি”।

অভিশপ্ত শয়তান আরও বলল: “ক্রোধের সময় মানুষ শয়তানের হাতের বলে পরিণত হয়। শিশু যেমন তার ইচ্ছামত এদিক ওদিক বল চালিয়ে মজা পায়, ঠিক তেমনি শয়তানও মানুষের সাথে তাই করে থাকে”।

অবশেষে শয়তানটি বুযুর্গ লোকটির কাছে পরাজিত হয়ে চলে গেল।

All News

বিয়ে কি, কেন এবং কিভাবে করবেন?

এ বি এম মুহিউদ্দীন ফারাদী (পর্ব-১, ভূমিকা) বুঝ হওয়া মাত্র প্রত্যেক ছেলে-মেয়ে কল্পনার মানসপটে চুপিচুপি এমন একজনের ছবি আঁকে এবং আনমনে এমন একজনের কথা ভাবে, যাকে সে একান্ত আপন করে কাছে পেতে চায়। মনের অজান্তে তাকে ঘিরে রচিত হয় স্বপ্ন প্রাসাদ। কে হবে তার সুখ-দুঃখের চির সাথী, বন্ধু ও প্রিয়জন?Read More

ইচ্ছে